ঈমান কাকে বলে। ইমান শব্দের অর্থ কি

ঈমান কাকে বলে

ঈমান একটি গুরুত্বপূর্ণ শব্দ। মানে বিশ্বাস করা। এছাড়াও ঈমান শব্দটি আনুগত্য করা, পতিত হওয়া, নির্ভর করা ইত্যাদি অর্থে ব্যবহৃত হয়।

পৃথিবীতে সবচেয়ে ভালো মানুষ কে

মাগরিবের নামাজ কয় রাকাত ও কিভাবে পড়তে হয়

রোজা ভঙ্গের কারণ কয়টি ও কি কি জানুন বিস্তারিত
এশার নামাজ কয় রাকাত ও কিভাবে পড়তে হয় জানুন রিস্তারিত

ঈমান মূলত ছয়টি বিশ্বাসের উপর প্রতিষ্ঠিত। সেগুলো হলো –

1. আল্লাহ
2. ফেরেশতা
3. আসমানী কিতাব
4. নবী-রাসূল
5. শেষ দিন এবং কিয়ামত
6. ভাগ্যে বিশ্বাস করা।

ইসলামী আইনের পরিপ্রেক্ষিতে ঈমানের অর্থ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে ইমামদের বিভিন্ন সংজ্ঞা পরিলক্ষিত হয়।
ঈমান কাকে বলে

আসরের নামাজ কয় রাকাত ও কিভাবে পড়তে হয়

ইমাম আবু হানিফা (র.) বলেছেন

, “অভ্যন্তরীণ বিশ্বাস এবং মৌখিক স্বীকৃতি হল ঈমান।”

ফজরের নামাজ কয় রাকাত ও পড়ার নিয়ম

ইমাম গাজ্জালী (রহঃ) বলেন,

‘ঈমান হলো রাসূলুল্লাহ (সাঃ) এর আনীত সকল বিধানের সাথে আল্লাহর প্রতি ঈমান আনা। আর আরকানকে (ইসলামের বিধান) কাজে পরিণত করার নামই ঈমান।’

ঈমান কাকে বলে
ঈমান কাকে বলে
ঈমান কাকে বলে

কালেমার প্রথম অংশ-

‘লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহ।’ মনেপ্রাণে বিশ্বাস করা যে, আল্লাহ ছাড়া কোন ইলাহ নেই, মাবুদ নেই। তিনি একক, অনন্য। তিনি সব কিছু করতে পারেন। সমস্ত ক্ষমতা ও কর্তৃত্ব একমাত্র তাঁরই অধীন। তিনি সমস্ত দুর্বলতা, ত্রুটি থেকে সম্পূর্ণ মুক্ত ও পবিত্র। বিশ্বাস করতে হবে যে, ছোটখাটো থেকে সকল বিষয় সকলেই তাঁর মুখাপেক্ষী, কিন্তু তিনি কারও মুখাপেক্ষী নন।
যোহরের নামাজ কয় রাকাত ও কিভাবে পড়তে হয়

ঈমান কাকে বলে

কালেমার দ্বিতীয় অংশ হলো-

‘মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ’। হজরত মুহাম্মদ (সা.) আল্লাহর রাসূল। তিনি শেষ নবী। মানুষকে পথ দেখানোর জন্য মহান আল্লাহ প্রেরিত সর্বশেষ নবী। তাঁর পরে কোন নবী বা রাসূল আসবেন না – যা মনেপ্রাণে বিশ্বাস করতে হবে এবং হৃদয়ে ধারণ করতে হবে।

ইমান শব্দের অর্থ কি

ঈমান কাকে বলে
ঈমান কাকে বলে
নববহ্নি

Check Also

এশার নামাজ কয় রাকাত

এশার নামাজ কয় রাকাত ও কিভাবে পড়তে হয় জানুন রিস্তারিত

এশার নামাজ কয় রাকাত নামাজের মধ্যে এশার নামাজ ও ফজরের নামাজ বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এশার নামায …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *