জন ডিলিঞ্জার কে ? ; এফবিআই তালিকায় জনগনের ১ম শত্রু

Table of Contents

জন ডিলিঞ্জার কে ?

সিনেমায় যেমন ডন নম্বর ওয়ান , হিরো নম্বর ওয়ান থাকে । এই ব্যক্তি বাস্তবেই নম্বর ওয়ান এ এসেছেন । ডন বাঁ হিরো হয়ে নয় , এফবিআই তালিকাতে সর্ব প্রথম পাব্লিক এনিমি নম্বর ওয়ান (Public Enemy Number 1 ) মানে উনি হচ্ছেন জনগনের এক নম্বর শত্রু ।

ভূমিকা

দুনিয়াতে প্রতিটি মানুষই আলাদা তাদের হাতের ছাপের মত । প্রতিটি মানুষই কোন না কোনো বিশেষ বৈশিষ্ট্য নিয়ে দুনিয়ায় এসেছে । তাই মানব সমাজ এত বৈচিত্রময় ।
বিখ্যাত হোক বাঁ কুখ্যাত হোক বিশেষ কোনো কাজের জন্য হয় । তেমনি এক কুখ্যাত লোক সম্পর্কে জানবো এখন । যার নাম জন ডিলিঞ্জার । জন ডিলিঞ্জার পেশায় একজন মার্কিন ব্যাংক ডাকাত ছিলেন ।

জন ডিলিঞ্জার কে ?

জন ডিলিঞ্জার কে ?
জন ডিলিঞ্জার কে ?

জন্ম ও শুরুর জীবন

ডিলিঞ্জার নামের এই ব্যাক্তির জন্ম হয় ১৯০৩ সালের ২২ জুন । ইন্ডিয়ানা অঙ্গরাজ্যের ইন্ডিয়ানাপোলিস শহরের ব্রাইটউড এলাকায তার জন্মভূমি । তার শুরুর জীবন সুখের ছিল না । তার জন্মের চারবছর পর তার মা মারা যান । এরপর তার বাবার সাথে ১৪ বছর বয়সী মেয়ের বিবাহ হয় ।

শৈশব

অতঃপর , বিভিন্ন কারনে জনের বাবা জনকে নিয়ে ইন্ডিয়ানার নিকটবর্তী মুরসভিলে চলে যান । এরপর জনের শৈশব সেখানেই কাটে ।
একদিন জন এক মহিলার রেল থেকে কয়লা চুরি করে অন্যত্র বিক্রির একটি ঘটনা প্রতক্ষ্য করল । এরপর সে ঘটনা এক বিচারকের কাছে বলেন । বিচারক তেমন কোনো শাস্তির কথা বললেন না । যা জনকে চিন্তিত করে তোলে ও খারাপ কাজে উৎসাহিত করে তোলে ।
এরপর জন বিভিন্নভাবে দূর্নীতি ও অপকর্মের সাথে জড়িয়ে পড়ে । তার বাবা তাকে অন্যত্র নিয়ে যায় ।

পেশা ও বিবাহ

ডিলিঞ্জার পেশা হিসেবে যোগদান করেন ; মার্কিন নৌবাহিনীতে নাবিক হিসাবে । চাকুরি শুরুর ৫ মাসের মাথাতেই পালিয়ে যান । এর বহুদিন পর ইন্ডিয়ানাতে ফিরে আসেন । তিনি বেরিল হোভিয়াস নামের এক নারীর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন ।

অপরাধ জীবন

যাহোক , জন ডিলিঞ্জার কে এবং; তার কুখ্যাত হওয়ার কাজ নিয়ে আলোচনা করা যাক । তিনি তার কুকর্মের জগতে নামেন ১৯২৪ সালে ; ফ্র্যাংক মরগান নামের তার স্থানীয় মুদীর দোকানীকে ছিনতাই করার মধ্যদিয়ে । তার এই প্রথম কুকর্মের অভিযোগের শাস্তি স্বরুপ ১০-২০ বছরের কারাদন্ড হয় । এত দীর্ঘ সময় জেলের বন্দী জীবনকে কাজে লাগায় জন ডিলিঞ্জার । জেলে তিনি অন্য জ্ঞানী গুনি অভিজ্ঞ অপরাধীদের সাথে সুসম্পর্ক স্থাপন করেন । তাদের কাছ থেকে ডাকাতি সহ বিভিন্ন অপরাধের কলাকৌশল রপ্ত করে ফেলেন ।

জন ডিলিঞ্জার কে ?

জেল থেকে মুক্তি পাবার পর অর্জিত জ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে নেমে পড়েন অপরাধ জগতে । ডাকাতি ,হত্যা সহ নানা রকম অপরাধ সফলতার সাথে চালিয়ে যান ।
১৯৩২ থেকে ১৯৩৪ এর মধ্যে মাত্র ১৮ মাসে তিনি তার কারাগারে অর্জিত হয় জ্ঞান । জন ডিলিঞ্জার কে প্রয়োগ দেখিয়ে দেন বহুসংখ্যক ব্যাংক ডাকাতি এবং হত্যার মাধ্যমে । ১৯৩০ সালে সে দেশে দেখা দেয় অর্থনৈতিক মন্দার । আর ঠিক সে সময়ের পত্র পত্রিকা গুলোর মাধ্যমে বিশ্ববাসীকে জানিয়ে দেয়া হয় ডিলিঞ্জারের কাহিনী । আর এত সুকৌশলে কুকার্জ সিদ্ধির জন্য রবিন হুড নামে পরিচিতি পায় তার । অবশ্য জন ডিলিঞ্জারের প্রিয় ব্যাক্তি ছিলো রবিন হুড

শেষ পরিণতি

কুখ্যাত এই জন ডিলিঞ্জার তার অপরাধ কর্মের জন্য নাম উঠে যায় এফবিআই তালিকার সর্ব প্রথমে । এরপর, ১৯৩৪ সালের ২২শে জুলাই শিকাগো শহরের বায়োগ্রাফ নামের সিনেমা হল যান । সেখান থেকে বের হওয়ার সময় এফবিআই এজেন্টদের গুলিতে ডিলিঞ্জার নিহত হন এই উনিশশতকের রবিনহুড খ্যাত কুখ্যাত মার্কিন ব্যাংক ডাকাত জন ডিলিঞ্জার ।

পড়তে পারেনঃ সাম্প্রতিক বিশ্বে চলমান ঘটনা

জন ডিলিঞ্জার কে ?

জন ডিলিঞ্জারের ব্যাংক ডাকাতির তালিকা

ডিলিঙ্গার তার ব্যাংক-ডাকাতি ক্যারিয়ার জুড়ে $ ৩০০,০০০ এরও বেশি র্যাক করেছে।
তিনি যেসব ব্যাংক লুট করেছিলেন তার মধ্যে ছিল:

জুলাই ১৭, ১৯৩৩ – ডেলভিল, ইন্ডিয়ানাতে বাণিজ্যিক ব্যাংক – $ ৩,৫০০

আগস্ট ৪, ১৯৩৩ – মন্টপিলিয়ার ন্যাশনাল ব্যাংক মন্টপিলিয়ার, ইন্ডিয়ানা – $ ৬,৭০০

আগস্ট ১৪, ১৯৩৩ – ব্লফটন, ওহিওতে ব্লফটন ব্যাংক – $ ৬,০০০

সেপ্টেম্বর ৬, ১৯৩৩ – ইন্ডিয়ানাপোলিস, ইন্ডিয়ানাতে ম্যাসাচুসেটস এভিনিউ স্টেট ব্যাংক – $ ২১,০০০

অক্টোবর ২৩, ১৯৩৩ – সেন্ট্রাল নেশন ব্যাংক এবং ট্রাস্ট কোং গ্রিনক্যাসল, ইন্ডিয়ানা – $ ৭৬,০০০

নভেম্বর ২০, ১৯৩৩ – উইসকনসিনের রেসিনে আমেরিকান ব্যাংক এবং ট্রাস্ট কোং – $ ২৮,০০০

ডিসেম্বর ১৩, ১৯৩৩ – শিকাগো, ইলিনয়ে ইউনিটি ট্রাস্ট এবং সেভিংস ব্যাংক – $ ৮,৭০০

জানুয়ারি, ১৫, ১৯৩৪ – পূর্ব শিকাগো, ইন্ডিয়ানাতে প্রথম ন্যাশনাল ব্যাংক – $ ২০,০০০

মার্চ ৬ , ১৯৩৪ – সিকিউরিটিস ন্যাশনাল ব্যাংক এবং ট্রাস্ট কোং সিউক্স ফলস, সাউথ ডাকোটা – $ ৩৯,৫০০

মার্চ ১৩, ১৯৩৪ – মেসন সিটি, আইওয়াতে প্রথম ন্যাশনাল ব্যাংক – $ ৫২,০০০

জুন ৩০, ১৯৩৪ – ইন্ডিয়ানায় সাউথ বেন্ডে মার্চেন্টস ন্যাশনাল ব্যাংক – $ ২৯,৮৯০

১৯৩৫ সালের ১৫ জানুয়ারি পূর্ব শিকাগো ডাকাতি । এই চুরি থেকেই ডিলিঙ্গার একজন পুলিশ অফিসারকে গুলি করে; যার ফলে তার অভিযোগের ক্রমবর্ধমান তালিকায় হত্যার যোগ হয়।
জন ডিলিঞ্জার কে ?

আমাদের সাথে যুক্ত হতে লাইক দিন আমাদের ফেসবুক পেজ নববহ্নি তে

Check Also

চেঙ্গিস খান

চেঙ্গিস খান ও মঙ্গোলদের উত্থান

চেঙ্গিস খান মঙ্গোল সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন এবং; যা তিনি ১২০৬ সাল থেকে ১২২৭ সাল পর্যন্ত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *