জ্যামিতি কাকে বলে? জ্যামিতি শব্দের অর্থ কি

Table of Contents

জ্যামিতি কাকে বলে?

জ্যামিতি শব্দের অর্থ কি?

জ্যা অর্থ ভূমি, মিতি অর্থ পরিমাপ অর্থাৎ জ্যামিতিক অর্থ ভূমির পরিমাপ । গণিতশাস্ত্রের যে শাখায় বিন্দু থেকে বৃত্ত পর্যন্ত যাবতীয় ক্ষেত্রের পরিমাপ ও বৈশিষ্ট্য ধর্ম সম্পর্কে আলোচিত হয় তাই জ্যামিতি।

→ geometry একটি গ্রিক শব্দ। Geo, অর্থ Earth (ভূমি);
metry → Metness → Metnein → measured. (পরিমাপ)

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান জেনে নিন;
মিশরের আলেকজান্দ্রিয়া বিশবিদ্যালয়ের অধাপক গ্রিক পন্ডিত ইউক্লিড যিনি ৩২৫ থ্রিস্টাব্দে জন্ম গ্রহণ করেন এবং ২৬৫ খ্রিস্ট পূর্বাব্দে মিশরের আলেকজান্দ্রিয়ায় মারা যান। তার বিখ্যাত গ্রন্থ The Element ১৩ খন্ডে বিভক্ত। বইটিতে তিনি ৪৬৫ টি প্রতিজ্ঞা প্রমাণের মাধ্যমে জ্যামিতির সুনির্দিষ্ট ব্যাখ্যা প্রদান করেন। ১৪৮২ সালে বইটি প্রথম বানিজ্যিকভাবে বাজারে আসে। তকে আমিতির জনক বলা হয়।
বঙ্গবন্ধুর জীবনী সাধারণ জ্ঞান;বঙ্গবন্ধু রচনা;সাধারণ জ্ঞানpdf

জ্যামিতি কাকে বলে
জ্যামিতি কাকে বলে
এক থেকে একশ বানান(১ থেকে ১০০); এক দুই বানান
শীতের সকাল রচনা ও শীতের সকাল অনুচ্ছেদ(বাংলা রচনা)1
জ্যামিতি গণিত শাস্ত্রের একটি প্রাচীনতম শাখা। যদিও ব্যুৎপত্তিগতভাবে “জ্যামিতি” শব্দের অর্থ ভূমির পরিমাপ; তথা জ্যামিতি প্রকৃত পক্ষে স্থান বিষয়ক বিজ্ঞান (Geometry is the science concerned with space) ভূমি পরিমাপের জন্য জ্যামিতির উদ্ভব হলেও; বর্তমানে জ্যামিতি কেবল ভূমি পরিমাপের জন্যই ব্যবহৃত হয় না বরং বহু জটিল গাণিতিক সমস্যা সমাধানে জ্যামিতিক জ্ঞান অপরিহার্য। জ্যামিতিক জ্ঞান আমাদের জীবনের সমস্যা; সমাধানের ইঙ্গিত দেয়, চিন্তা শক্তির উন্মেষ ও মননশীলতার উৎকর্ষ সাধন করে থাকে।

বিন্দু থেকে জ্যামিতির উৎপত্তির ক্রমবিকাশ

বিন্দু → রেখা
রেখা → সরলরেখা ও বক্ররেখা
সরলরেখা→ সমান্তরাল সরলরেখা ও অসমান্তরাল সরল রেখা
বক্ররেখা→ বৃত্ত ও ঘন জ্যামিতি
অসমান্তরাল সরলরেখা→কোণ, ত্রিভুজ, চতুভুর্জ ও বহুভুজ।

জ্যামিতি কত প্রকার?

ব্যবহার ভেদে জ্যামিতিকে দুই ভাগে ভাগ করা যায়
 ব্যবহারিক জ্যামিতি
 তাত্বিক জ্যামিতি

জ্যামিতি কাকে বলে

ব্যবহারিক জ্যামিতিঃ জ্যামিতি শাস্ত্রের যে শাখায় রেখা, তল, বিন্দু বস্তু, ক্ষেত্র, কোণ নিয়ে আলোচনা করা হয় তাই ব্যবহারিক জ্যামিতি।
তাত্ত্বিক জ্যামিতি : জ্যামিতি শাস্ত্রের যে শাখায় জ্যামিতিক উপাত্তগুলোকে সত্য বলে প্রমাণ করা যায় এবং তা থেকে যুক্তি তর্কের মাধ্যমে কোন সিদ্ধান্তে আসা যায় তাই তাত্ত্বিক জ্যামিতি ।

জ্যামিতি কাকে বলে
জ্যামিতি কাকে বলে

বিন্দু

যার দৈঘ্য প্রস্থ ও উচ্চতা নেই শুধু অবস্থান আাছে তাকে বিন্দু বলে।
 বিন্দুর নির্দিষ্ট কোন মাত্রা নেই।
 দুটি নির্দিষ্ট বিন্দু দিয়ে কেবলমাত্র একটি সরলরেখা আকা যায় ও একাধিক বক্ররেখা আকা যায়।

রেখা

বিন্দুর চলার পথকে রেখা বলে।
বা
তলের মাত্রাগুলো একটি নির্দিষ্ট বিন্দুতে মিলিত হলে রেখা উৎপন্ন হয়।

রেখার কোন প্রান্ত বিন্দু নেই।

রেখাংশঃ

রেখার মধ্যে দুটি বিন্দুর সংযোগ অংশকে রেখাংশ বলে। রেখাংেশের প্রান্ত বিন্দু দুইটি।

রশ্মিঃ

যার একটি প্রান্ত বিন্দু আছে অপর অংশ অসীম তাকে রশ্মি বলে।

জ্যামিতি কাকে বলে
জ্যামিতি শব্দের অর্থ কি

নববহ্নি

Check Also

চতুর্ভুজ কাকে বলে

চতুর্ভুজ কাকে বলে। বৈশিষ্ট্য ও কত প্রকার কি কি

চতুর্ভুজ কাকে বলে চতুর্ভুজ হল এমন একটি সমতল চিত্র যার চারটি বাহু বা প্রান্ত রয়েছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *