পদ কাকে বলে। পদ কত প্রকার ও কি কি

Table of Contents

পদ কাকে বলে

বাক্যে ব্যবহৃত যৌগিক শব্দ ও বাক্যাংশকে পদ বলে। একটি শব্দে, একটি বাক্যে ব্যবহৃত প্রতিটি শব্দ একটি পদ। যেমন- মানুষ, তারা, জন্য, আকাশ ইত্যাদি।

যোজনী কাকে বলে। যোজনী কি?
সুষম খাদ্য কাকে বলে। আদর্শ খাদ্য তালিকা

আধুনিক কম্পিউটারের জনক কে জানুন বিস্তারিত

ফজরের নামাজ কয় রাকাত ও পড়ার নিয়ম
বাংলাদেশের আয়তন কত ২০২২ অনুযায়ী জেনে নিন
মৌলিক সংখ্যা কাকে বলে। মৌলিক সংখ্যা কতটি
চতুর্ভুজ কাকে বলে। বৈশিষ্ট্য ও কত প্রকার কি কি

পদের প্রকার/শ্রেণীবিভাগ

পদ প্রধানত 2 প্রকার। যথা:-

সব্যয় পদ
অব্যয় পদ

সব্যয় পদ আবার ৪ প্রকার।

বিশেষ্য
বিশেষণ
সর্বনাম
কর্ম বা ক্রিয়া

বিশেষ্য পদ কাকে বলে

বিশেষ্য
কোনো ব্যক্তি, বস্তু, স্থান, জাতি, সময়, মেজাজ ইত্যাদি বোঝাতে বাক্যে ব্যবহৃত সকল পদকে বিশেষ্য বলে। ইফাদ, ঢাকা, নদী, গীতাঞ্জলি, চাল ইত্যাদি।

বিশেষণ পদ কাকে বলে

বিশেষণ
যে সকল শব্দ বিশেষ্য, সর্বনাম ও ক্রিয়ার গুণ, অবস্থা, সংখ্যা, পরিমাণ ইত্যাদি প্রকাশ করে তাদেরকে বিশেষণ বলে। যেমন- নীল আকাশ, দক্ষ কারিগর, বালুকাময় মাটি।

পদ কাকে বলে
পদ কাকে বলে

সর্বনাম পদ’ কাকে বলে

সর্বনাম
যে শব্দ বিশেষ্যের পরিবর্তে ব্যবহৃত হয় তাকে সর্বনাম বলে। যেমন- আমি, আমরা, সেই, কেউ, অন্য, পরে ইত্যাদি।

অব্যয় পদ’ কাকে বলে

অব্যয়
কোন খরচ নেই = প্রিপেমেন্ট। যেটির দাম বা পরিবর্তন হয় না, অর্থাৎ যা একটি অপরিবর্তনীয় শব্দ একটি অব্যয়।

যে শব্দ সর্বদা অপরিবর্তনীয়, কখনও কখনও একটি বাক্যকে অলঙ্কৃত করে, কখনও কখনও একাধিক শব্দ, বাক্যাংশ বা বাক্যকে সংযোগ বা সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে, তাকে অব্যয় বলা হয়। যেমন – এবং, আবার, এবং, এবং, কিন্তু ইত্যাদি।

ক্রিয়া পদ কাকে বলে

কর্ম বা ক্রিয়া
যা দ্বারা কোন কর্ম সম্পাদন করা বোঝায়, তাকে কর্ম বলে। যেমন- খাও, যাও, খাও ইত্যাদি।

ভাষা কাকে বলে
ভাষা কাকে বলে
নববহ্নি

Check Also

পরিসংখ্যান কাকে বলে

পরিসংখ্যান কাকে বলে। এর বৈশিষ্ট্য ও শাখা

পরিসংখ্যান কাকে বলে একটি “ঘটনা” সম্পর্কে সংখ্যাসূচক তথ্যকে পরিসংখ্যান বলা হয়। যে সংখ্যার মাধ্যমে পরিসংখ্যানে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *