শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড; ভাবসম্প্রসারণ(২টি)

Table of Contents

শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড

মূলভাব: শিক্ষা একটি অমূল্য সম্পদ। একটি জাতির উন্নয়ন ও অগ্রগতির জন্য শিক্ষার ভূমিকা অপরিহার্য। শিক্ষা জাতির মেরুদন্ড এবং উন্নয়নের পূর্বশর্ত। মানবদেহের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গে মেরুদণ্ডের গুরুত্ব অপরিসীম। মেরুদণ্ড ছাড়া যেমন মানুষ চলতে পারে না, তেমনি শিক্ষা ছাড়া জাতি উন্নতির শিখরে পৌঁছাতে পারে না। মেরুদণ্ডহীন প্রাণী যেমন অন্যের উপর নির্ভরশীল হয়ে জীবন কাটায় তেমনি একটি জাতি শিক্ষা ছাড়া মেরুদন্ডহীন হয়ে পড়ে।

সম্প্রসারিত ভাব: মানবজীবন ও জাতীয় জীবনে অশিক্ষার মতো নারকীয় অভিশাপ নেই। অশিক্ষিত মানুষ পশুর সমতুল্য। তাই কবি বলেছেন: “অশিক্ষিত মানুষ পশুর মত।” তিনি কোরানের প্রথম আয়াত ‘ইকরা’ অর্থাৎ ‘পড়’ অবতীর্ণ করেন। নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আরও বলেছেন, একজন আলেমের কলমের মূল্য ও মর্যাদা একজন শহীদের রক্তের চেয়েও অনেক বেশি। ” নিরক্ষরতা সমাজের শত্রু, দেশের শত্রু, জাতির শত্রু, বিশ্বের শত্রু এবং আল্লাহর শত্রু। মাতৃভূমির উন্নতির জন্য তাই সবার আগে প্রয়োজন দেশের সাধারণ মানুষকে শিক্ষিত করা। তাছাড়া যে জাতি যত বেশি শিক্ষিত, সে জাতি তত বেশি উন্নত। সাম্প্রতিক বিশ্ব মানুষের শক্তি ও কর্ম দ্বারা প্রভাবিত হয়েছে। শিক্ষার মাধ্যমে মানুষ এই শক্তি অর্জন করেছে। মানুষ বিবেকবান প্রাণী। সে পশুর চেয়েও ভালো। এই শিক্ষা ও জ্ঞান দিয়ে সে অন্যান্য প্রাণীর উপর আধিপত্য বিস্তার করতে সক্ষম হয়। বিশ্বের শিল্পোন্নত দেশগুলোর মধ্যে জাপানের অবস্থান প্রথম। কিন্তু দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে মুখ থুবড়ে পড়ে জাপান। কিন্তু আজ, নিরলস পরিশ্রম, শিক্ষা এবং বুদ্ধিমত্তার মাধ্যমে, উন্নত আমেরিকানরা শুধুমাত্র শিক্ষার মাধ্যমে বিশ্বকে নেতৃত্ব দিচ্ছে। শিক্ষার অভাব আর অশিক্ষার কারণে সব দেশের রানী আমার মাতৃভূমি আর ভিখারি কাঙ্গালিনী। তাই শিক্ষাকে প্রতিটি মানুষের কাছে সহজলভ্য করার উপায় উদ্ভাবন করতে হবে। তাহলেই দেশের মানুষ শিক্ষিত হবে। আর জনগণ শিক্ষিত হলে দেশ ও জাতির উন্নতি হবে।

শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড
শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড

মন্তব্য: যে জাতি যত বেশি শিক্ষিত, সে জাতি তত বেশি উন্নত। পৃথিবীতে কোনো অশিক্ষিত জাতি মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারে না। কারণ শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড। তাই দেশ ও জাতির উন্নয়নে সবাইকে শিক্ষিত হতে হবে।

আরো পড়তে পারেনকীর্তিমানের মৃত্যু নেই; বাংলা ভাবসম্প্রসারণ
ভাবসম্প্রসারণ; দুর্জন বিদ্বান হলেও পরিত্যাজ্য

শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড

মূলভাবঃ শিক্ষা বা জ্ঞানকে বলা হয় মানুষের জীবন ও বিকাশের প্রধান সহায়ক বা নিয়ামক। গুহায় বসবাসকারী আদিম মানুষ আজ যে বিস্ময়কর সভ্যতা গড়ে তুলেছে তার পেছনে নিহিত রয়েছে যুগে যুগে মানুষের জ্ঞান অর্জন ও অর্জনের প্রক্রিয়া। এই প্রক্রিয়ার নাম শিক্ষা। এক সময় দৈহিক সামর্থ্য ছিল জাতির অহংকার, প্রকৃতি প্রদত্ত ঐশ্বর্য জাতির অহংবোধের জন্ম দিত। কিন্তু বিজ্ঞানের বিস্ময়কর অগ্রগতির এই যুগে জাতীয় জীবনে শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই।

সম্প্রসারিত ভাবঃ ব্যক্তি ও জাতীয় জীবনের বিকাশে শিক্ষা একটি বিকল্প। অশিক্ষিত মানুষ নিজের মঙ্গল বোঝে না। তিনি ধাপে ধাপে অন্ধকার দেখেন কারণ জ্ঞান বিজ্ঞানের আলোয় আলোকিত হয় না। অজ্ঞতার অন্ধকারে নিমজ্জিত নিরক্ষর জনগোষ্ঠী তাই জাতির জন্য বোঝা। এসব মানুষ যতদিন শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত থাকবে ততদিন জাতির দুর্ভাগ্য বিরাজ করতে থাকবে। এই হতভাগ্যরা নিজেরাই অমানবিক জীবন যাপন করবে এবং জাতির অগ্রগতির পথে দুর্ভেদ্য বাধা সৃষ্টি করবে। জাতি স্বাবলম্বী হয়ে অগ্রগতির পথে এগুতে পারবে না। তেত্রিশটি কশেরুকা সমন্বিত একটি খাড়া হাড় আমাদের সুঠাম দেহকে সচল রাখে। এই মেরুদণ্ডের নাম। এর থেকে যে কোনো ক্ষতি মানুষকে জড় প্রাণীতে পরিণত করে যার অস্তিত্ব এর উপর নির্ভর করে। যে কোন আশা বা স্বপ্ন তার কাছে মায়াময়, অপরিচিত অশিক্ষিত মানুষ বলে মনে হয়। প্রাচীনকাল থেকেই দেখা যাচ্ছে যে জাতি শিক্ষা ও দীক্ষায় অগ্রসর হয়, তার জ্ঞান-বিজ্ঞান, বীরত্ব ও প্রভাব বেশি থাকে। প্রাচীন গ্রীকদের শিক্ষার জন্য আজও স্মরণ করা হয়। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির এই যুগে অশিক্ষিত মানুষের কর্মদক্ষতা ও উৎপাদনশীলতার মাত্রা স্বাভাবিকভাবেই কম। ফলে তারা জাতির যে কোনো কল্যাণমুখী পদক্ষেপে বাধা হয়ে দাঁড়ায়। গতানুগতিক সংস্কারের কারণে অশিক্ষিত মানুষ জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ মেনে নিতে পারছে না, তাই আমাদের দেশ জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে তেমন অগ্রগতি করছে না। কুসংস্কার তাদের এতটাই মূর্খ করে তুলেছে যে, নিরক্ষর মানুষ জনসাধারণের কোনো কর্মসূচিতে অংশ নিচ্ছে না। শিক্ষা থেকে বঞ্চিত মানুষ এই বিষয়গুলোকে পেছনে ঠেলে দেয়, জাতিকে পরিণত করে একটি নম্র, গর্বিত, আলোকিত মানুষে। প্রকৃতপক্ষে শিক্ষার সম্প্রসারণই হচ্ছে সংস্কার, জড়তা দূর করার, জাতিকে সংগঠিত করার, সমস্যা মোকাবিলায় সক্ষম করার, আশা ও স্বপ্ন দেখার সাহসের একমাত্র পথ। তাই ব্যক্তি ও জাতীয় জীবনে শিক্ষার গুরুত্ব অপরিহার্য।

শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড
শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড

মন্তব্য: যে জাতি যত বেশি শিক্ষিত, সে জাতি তত বেশি উন্নত। পৃথিবীতে কোনো অশিক্ষিত জাতি মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারে না। কারণ শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড। তাই দেশ ও জাতির উন্নয়নে সবাইকে শিক্ষিত হতে হবে।

শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড

আমাদের সাথে যুক্ত হতে লাইক দিন নববহ্নি পেজ এ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *